পৃথিবীর পাঁচটি অদ্ভুত ফুল সম্পর্কে জেনে নিন।

আমাদের, পৃথিবীতে এমন অনেক আজব ও অদ্ভুত জিনিস রয়েছে যেগুলো দেখে আপনি অবাক হয়ে যাবেন। কারণ সেগুলো আমরা অতি সহজেই দেখতে পারবো না। তাই আমি আপনাদের সাথে সেরকম কিছু অদ্ভুত জিনিস শেয়ার করব। আজকের পোস্টে আমি আপনাদের সাথে পৃথিবীর ৫ টি আজব ও অদ্ভুত ফুল সম্পর্কে জানব যে গুলো দেখতে দেখে আপনি অবাক না হয়ে থাকতে পারবেন না। তাহলে চলুন আজকের পোস্ট শুরু করা যাক।

 

Bleeding tooth fungus

ছত্রাক প্রজাতির এই ফুল খুবই ভয়ঙ্কর দেখায়। এদের দেখে মনে হয় যে কারো দাঁত থেকে রক্ত বের হচ্ছে। আপনাদের বলে রাখি কিছু লোকদের এই ফুল দেখে এলার্জি ও হতে পারে। এই ফুলের এরকম অবস্থা হওয়ার কারণে হচ্ছে পোকা মাকড় আকর্ষণ করা। এই ফুলটির ছবি বা বিস্তারিত জানতে আপনারা গুগলে জেতে পারেন।

 

Rafflesia arnoldii

এই ফুলটি পৃথিবীর সবচেয়ে বড় ফুল। মালয়েশিয়া, জাভা এবং থাইল্যান্ড এ পাওয়া যায় এই ফুলটি। এছাড়াও পৃথিবীর অন্যান্য কিছু অঞ্চলে এই ফুলটি পাওয়া যায়। এই ফুল কোন কাজ বা ডাল – পালা ছাড়াই জন্ম নেয়। এজন্য ফোটার আগে এই ফুলটি খুঁজে পাওয়া অনেক কষ্টসাধ্য হয়। এই ফুলটি ফুটতে প্রায় ৮ থেকে ১২ মাস সময় লাগে। যখন এই ফুলটি ফোটে তখন খুবই অদ্ভুত দেখায়। এই ফুলটির প্রায় ৭ থেকে ১১ কেজি পর্যন্ত হতে পারে এই ফুলটি আপনি আপনার ঘরে লাগাতে পারবেন না কেননা এই ফুলটাকে খুবই খারাপ গন্ধ বের হয়।

 

Dancing Plant

আপনি তো গানের সাথে মানুষের নাচ দেখেছেন নিশ্চয়। কিন্তু কোনো গাছের কি নাচ দেখেছেন। তাহলে চলুন এমন একটি গাছের সাথে পরিচয় করিয়ে দেই যেটি গানের শব্দ শুনে নাচতে থাকে। কথাটি অবিশ্বাস্য হলেও সত্ত্যি যে ডান্সিং প্লান্ট গানের সাথে নাচতে থাকে। এই গাছ গানের শব্দ কে অনুভব করতে পারে। এছাড়াও এই গাছটি ৬ মিটার পর্যন্ত লম্বা হতে পারে। এই ফুলটির ছবি বা বিস্তারিত জানতে আপনারা গুগলে জেতে পারেন।

 

Venus flytrap

পূর্ব আমেরিকা ও উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়াতে দেখতে পাওয়া এই ফুলটির নাম হচ্ছে ভেনাস ফ্লাইট্র্যাপ। একটি ছোট পোকামাকড় এর জন্য এই ফুলটি খুবই ভয়ঙ্কর এটি দেখতে খুবই সুন্দর হয়। এই ফুলটির বেশিরভাগ জায়গা হলুদ রঙের হয়ে থাকে। যখনই কোন পোকা মাকড় এই ফুলটির মধ্যে ঢুকে যায় তখন এ ফুলটি তার অর্থাৎ পোকা মাকড় এর থেকে সব রক্ত চুষে নেয়। এই ফুলটির ছবি বা বিস্তারিত জানতে আপনারা গুগলে জেতে পারেন।

 

The corpse flower

এটি হচ্ছে ইন্দোনেশিয়ার সুমাত্রা দ্বীপের দেখতে পাওয়া ফুল। এ ফুলটি এক থেকে দশ বছর কেবল মাত্র কয়েক ঘণ্টার জন্য একবার দেখা যায়। এটি যখন ফোটে তখন একে দেখতে এতটা সুন্দর লাগে যে তা বলে বোঝানো সম্ভব নয়। এই ফুলটি প্রায় ৮ থেকে ১০ মিটার লম্বা হয়। এবং দেখতে অনেক সুন্দর হয়ে থাকে।

এটি একেবারে মাটি থেকে জন্ম নেয়। এর কোনো গাছ থাকে না এমনকি কোন পাতা থাকে না।

আশা করি আর্টিকেল টি ভালো লেগেছে। লেগে থাকলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *